বন্ধ্যত্ব

বন্ধ্যত্বের কারণ কী?

Information তথ্য বাংলা

একটি সময় মনে করা হতো, বন্ধ্যত্বের জন্য কেবল নারীই দায়ী। তবে এখন ধারণা বদলেছে। এখন দেখা যাচ্ছে, বন্ধ্যত্বের জন্য নারী-পুরুষ উভয়েই দায়ী। সাধারণত নারীদের বেশি বয়সে সন্তান নেওয়ার চেষ্টা, অস্বাস্থ্যকর জীবনযাপন, অ্যান্ড্রোমেট্রোসিস রোগ ইত্যাদি কারণে বন্ধ্যত্বের সমস্যা হয়।

বন্ধ্যত্বের কারণের বিষয়ে কথা বলেছেন অধ্যাপক ডা. কামরুন নেসা। বর্তমানে তিনি বিআরবি হাসপাতালের গাইনি ও অবস বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও পরামর্শক হিসেবে কর্মরত।

প্রশ্ন : বন্ধ্যত্ব সমস্যায় ভোগার পেছনে কারণ কী?

উত্তর : পেছনে আসলে অনেক কারণ দায়ী। আগে মনে করা হতো মেয়েরাই কেবল দায়ী বন্ধ্যত্বের জন্য। কিন্তু এখন দেখা যাচ্ছে, নারী ও পুরুষ দুজনেই সমান দায়ী। ৪০ ভাগ কারণ মেয়েদের, ৪০ ভাগ কারণ পুরুষের। স্বামীর জন্যও ৪০ ভাগ বন্ধ্যত্ব হচ্ছে। আর কিছু বন্ধ্যত্ব ব্যাখ্যা করা যাচ্ছে না। স্বামী-স্ত্রী, তাদের কোনো ধরনের কারণ আমরা খুঁজে পাচ্ছি না। কিন্তু তাদের গর্ভাবস্থা হচ্ছে না।

নারীর কারণের মধ্যে বয়সটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ, ত্রিশের পর থেকে যেটা হয়, নারীদের ডিম্বাণু আসা এবং পরিপক্ব হওয়া—এ প্রক্রিয়াগুলো আস্তে আস্তে কমতে থাকে। ত্রিশের পর অনেক কমে যায় এবং চল্লিশের পর দেখা যায় যে মোটামুটি শূন্যের দিকে চলে গেছে। এই জন্য ত্রিশের পর থেকে হলে আমরা বলি বয়স একটি বড় কারণ। ত্রিশের পর এদের বাচ্চা ধারণক্ষমতাটা কমে যায়। পাশাপাশি কিছু ডিম্বস্ফোটন বিষয় রয়েছে, ডিম্বাণু যেটি হয়, সেটি পরিপক্ব হয় না বা ফাটে না। অনেক বড় একটি বিষয় এখনকার।

আমাদের জীবনযাপন বলেন, আমাদের সেডেন্টারি জীবনযাপন, এই যে দেরি করে আমরা বাচ্চা নিই, এসব অনেক কারণ এর জন্য দায়ী। এরপর টিউবে কিছু বিষয় থাকে। টিউব ব্লক থাকতে পারে। আগের সংক্রমণ, আগের অস্ত্রোপচার, যেকোনো কারণে টিউব ব্লক থাকতে পারে। এরপর অ্যান্ড্রোমেট্রোসিস বলে একটি রোগ রয়েছে। আমরা প্রায় ২০ ভাগ রোগ পাচ্ছি, যারা অ্যান্ড্রোমেট্রোসিসের জন্য, বন্ধ্যত্বে ভুগছে। আবার আমরা ইউট্রাসের কিছু সমস্যার জন্য পাই। ইউট্রাসে দেখা যাচ্ছে, ফাইব্রয়েড রয়েছে অথবা পলিপ রয়েছে, অথবা জন্মগত ইউট্র্রাসটা ছোট, তাদের দেখা যাচ্ছে ইউট্রাসের সমস্যার জন্য বন্ধ্যত্ব হচ্ছে। খবর এনটিভি।

This post source: DMPnews

Leave a Reply